এভাবেই জবাব দেয় বার্সা


ক্রীড়া ডেস্ক: | Published: 2019-01-31 10:07:44 BdST | Updated: 2019-05-23 05:00:50 BdST

শেষ মুহূর্তে গোল করেন মেসি। ছবি: এএফপি

কোপা ডেল রেতে সেভিয়ার বিপক্ষে কোয়ার্টার ফাইনালের দ্বিতীয় লেগের খেলায় ৬-১ গোলের জয় পেয়েছে বার্সেলোনা। জোড়া গোল করেছেন কুতিনহো। একটি করে গোল করেছেন রাকিটিচ, সার্জিও রবার্তো, লুইস সুয়ারেজ ও মেসি। সেভিয়ার হয়ে একমাত্র গোলটি করেন অ্যারানা।

লা লিগায় জিরোনার বিপক্ষে নিজেদের মাঠে পয়েন্ট হারানোর জবাবটা তাদের মাঠেই দিয়ে এসেছে বার্সেলোনা।

এবার কোপা ডেল রের পালা। কোপা ডেল রের কোয়ার্টার ফাইনালের প্রথম লেগে সেভিয়ার মাঠে গিয়ে ২-০ গোলের ব্যবধানে হেরে এসেছিল বার্সেলোনা। বুধবার রাতে ন্যু ক্যাম্পে ওই ম্যাচেরই প্রতিশোধ নিল কাতালানরা! সেটা যদিও মুখ ফুটে কেউ বলেননি। তবে সেভিয়াকে নিয়ে যে ছেলেখেলা তারা খেলল তাতে আর কিইবা বলা যায়!

নিজেদের দুর্গে সেভিয়াকে পেয়ে গোলের বুফে সাজিয়ে বসেছিল মেসি-সুয়ারেজ-কুতিনহোরা। ৬-১ ব্যবধানে সেভিয়াকে উড়িয়ে ৬-৩ গোলের অগ্রগামিতায় সেমি ফাইনাল নিশ্চিত করল ভালভার্দের শিষ্যরা। বার্সেলোনা বুঝিয়ে দিল, তারা এভাবেই জবাব দেয়!

প্রথম লেগে সেভিয়ার বিপক্ষে নিজের সেরা শিষ্যদের বসিয়ে বাজি ধরেছিলেন ভালভার্দে। এবার আর সেটা করেননি। মাঠে নামিয়েছেন নিজের সেরা ছাত্রদেরই। গুরুর আস্থার প্রতিদান দু হাত ভরে দিয়েছে শিষ্যরা।

প্রথমার্ধেই পেনাল্টি আদায় করেন মেসি। তবে সেভিয়ার বিপক্ষে প্রথম লেগে না খেলা এই তারকা পেনাল্টি শট নেননি। ১৩তম মিনিটে পেনাল্টি থেকে গোল করে শুরুটা করেন কুতিনহো। এরপর প্রথমার্ধের ৩১তম মিনিটে ইভান রাকিটিচের গোলে ব্যবধান বাড়ায় স্বাগতিকেরা। এই ফাঁকে সমতায় ফেরার সুযোগ পায় সেভিয়াও। কিন্তু ভাগ্য খারাপ থাকলে যা হয় আরকি...! পিকের ফাউলে পেনাল্টি পায় সেভিয়া। বানেগারের শট বাঁ দিকে ঝাঁপিয়ে আটকে দেন বার্সা গোলরক্ষক সিলেসেন।

দ্বিতীয়ার্ধেও শুরুটা করেন কুতিনহো। ৫৩তম মিনিটে ব্রাজিলিয়ান এই মিডফিল্ডারের অসাধারণ হেডে স্কোরলাইন ৩-০ করে স্প্যানিশ জায়ান্টরা। গোলের উদ্‌যাপন শেষ হতে না হতে সেভিয়ার দুঃখের কারণ হয়ে দাঁড়ান রবার্তো। ৫৪তম মিনিটে মেসির বাড়ানো বল থেকে রবার্তোর গোলে স্কোরলাইন ৪-০ তে গিয়ে দাঁড়ায়।

এরপর যেন খানিকটা জিরিয়ে নিতে চায় স্বাগতিকেরা। ঢিলেমি দেয় খেলায়ও। সুযোগ কাজে লাগায় সেভিয়া। ৬৭তম মিনিটে অ্যারেনার গোলে ব্যবধান কমলেও সেটা সেভিয়ার জন্য স্রেফ সান্ত্বনা হয়েই রইল। কারণ নির্ধারিত সময়ের বাঁশি বাজার এক মিনিট আগে তাদের জালে বল জড়ান বার্সেলোনার উরুগুইয়ান তারকা লুইস সুয়ারেজ। জর্ডি আলবার দুর্দান্ত ক্রস থেকে পাওয়া বলে পা ছুঁইয়ে জালে জড়ান সুয়ারেজ।

সবাই গোল করল। কিন্তু মেসি? তিনি বাদ যাবেন কেন! যোগ হওয়া সময়ে অতিথিদের কফিনে শেষ পেরেকটি ঠুকে বাড়ি পাঠিয়ে দেন বার্সেলোনার আর্জেন্টাইন এই গোলমেশিন।

ভ্যালেন্সিয়া ও রিয়াল বেতিস আগেই সেমির টিকিট কেটেছে। এবার সেমির ট্রেনে চড়ে বসল কাতালানরা। এখন অপেক্ষা আরও এক দলের। শেষ চারে সঙ্গী কারা হবে—রিয়াল মাদ্রিদ নাকি জিরোনা? আজকের ম্যাচের পরই সেটা জানা যাবে।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।