ঢাকা সোমবার, ১০ই মে ২০২১, ২৬শে বৈশাখ ১৪২৮


খালেদা জিয়া ছাড়া বাসার সবাই করোনামুক্ত


প্রকাশিত:
১ মে ২০২১ ১৩:০৯

আপডেট:
১০ মে ২০২১ ০০:৪৫

ছবি: সংগৃহীত

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার গুলশানের বাসভবনের সব কর্মী করোনামুক্ত হয়েছেন। শনিবার (০১ মে) চেয়ারপারসনের প্রেস উইংয়ের সদস্য শায়রুল কবির খান সংবাদমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, খালেদা জিয়ার বাসায় মোট ৯ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছিলেন। এর মধ্যে আগে পাঁচজনের নেগেটিভ হয়। বেগম জিয়াসহ চারজন পজিটিভ ছিলেন। শুক্রবার (৩০ এপ্রিল) সবার রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে। ওই বাসায় এখন আর কারো করোনা পজিটিভ নেই।

তবে খালেদা জিয়ার করোনা রিপোর্টের বিষয়ে চিকিৎসকরা পরে জানাবেন বলে জানান শায়রুল।

এর আগে গত ১১ এপ্রিল রাজধানীর গুলশানে খালেদা জিয়ার বাসভবন ফিরোজার ৯ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন বলে জানান তার ব্যক্তিগত চিকিৎসক মামুন।

এদিকে করোনা আক্রান্ত বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল রয়েছে। তবে আগামী সোমবার পর্যন্ত তাকে হাসপাতালেই থাকতে হবে বলে জানিয়েছেন তার ব্যক্তিগত চিকিৎসক এ জেড এম জাহিদ হোসেন।

রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বিএনপি চেয়ারপারসনের সবশেষ শারীরিক অবস্থা নিয়ে শুক্রবার (৩০ এপ্রিল) সংবাদমাধ্যমকে এ তথ্য জানান তিনি।

ডা. জাহিদ জানান, বেগম জিয়ার আরও কয়েকটি পরীক্ষা করাতে হবে। সব পরীক্ষা শেষ হতে আগামী সোমবার পর্যন্ত লাগতে পারে। সব পরীক্ষা শেষে রিপোর্ট পর্যালোচনার পর তাকে বাসায় নেওয়ার বিষয়ে সিদ্ধান্ত হবে।

গত মঙ্গলবার (২৭ এপ্রিল) খালেদা জিয়াকে রাতে এভারকেয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ভর্তির পর ইতোমধ্যে সিটি স্ক্যান, ইসিজি ও ইকোসহ যেসব পরীক্ষা করা হয়েছে তাতে বড় কোনো জটিলতা পাওয়া যায়নি। তিনি হাসপাতালের কার্ডিওলজিস্ট ডা. শাহাবুদ্দিন তালুকদারের তত্ত্বাবধায়নে চিকিৎসাধীন।

গত ১০ এপ্রিল খালেদা জিয়ার করোনা শনাক্ত হয়। এরপর থেকে গুলশানের বাসা 'ফিরোজা'য় চিকিৎসক টিম গঠন করে অধ্যাপক ডা. এফএম সিদ্দিকীর নেতৃত্বে চিকিৎসা শুরু হয়। করোনা আক্রান্তের ১৪ দিন পার হওয়ার পর আবারও খালেদা জিয়ার নমুনা পরীক্ষা করা হয়; কিন্তু ফল করোনা পজিটিভ আসে। পরে তাকে রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


Top