ঢাকা মঙ্গলবার, ২০শে এপ্রিল ২০২১, ৬ই বৈশাখ ১৪২৮


করোনায় আক্রান্ত ৮ মাঠকর্মী, শঙ্কায় আইপিএল


প্রকাশিত:
৫ এপ্রিল ২০২১ ১০:২৯

আপডেট:
৫ এপ্রিল ২০২১ ১৩:০৩

ছবি: সংগৃহীত

করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে বিপর্যস্ত ভারত। ভারতের দৈনিক সংক্রমণের সংখ্যা ৯০ হাজারে গিয়ে পৌঁছেছে।

পরিসংখ্যানে দেখা যাচ্ছে, আক্রান্তের হার দেশটির মহারাষ্ট্রেই সর্বোচ্চ। গত ২৪ ঘণ্টায় সেখানে আক্রান্ত হয়েছেন ৪৭ হাজার ৯১৩ জন। অর্থাৎ মোট আক্রান্তের অর্ধেকই সেখানে।

এদিকে করোনার হানা পড়েছে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) ভেন্যু মুম্বাইয়ের ওয়াংখেড়ে। সেখানে আট মাঠকর্মী এ প্রাণঘাতী ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন।

সম্প্রতি ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামের ১৯ মাঠকর্মীর আরটি-পিসিআর টেস্ট করানো হয়। ২৬ মার্চ তিনজনের রিপোর্ট পজিটিভ আসে। এর পর ১ এপ্রিল আরও পাঁচজনের রিপোর্ট পজিটিভ আসে।

এমন খবরে অনুশীলন নিয়ে চিন্তায় পড়ে গেছে আইপিএলের ফ্রাঞ্চাইজিগুলো। বিষয়টি নিয়ে চিন্তায় পড়েছেন ভারতীয় বোর্ড বিসিসিআইয়ের কর্মকর্তারাও।

কারণ আগামী ১০ এপ্রিল ওয়াংখেড় স্টেডিয়ামে ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। মুখোমুখি হবে চেন্নাই সুপার কিংস ও দিল্লি ক্যাপিটালস।

সেই ম্যাচ দিয়েই মুম্বাইয়ে শুরু হবে আইপিএল। ২৫ এপ্রিল পর্যন্ত খেলা রয়েছে ওই ভেন্যুতে। সব মিলিয়ে মুম্বাইয়ে হবে ১০টি ম্যাচ।

অথচ মহারাষ্ট্রে করোনা যে হারে বাড়ছে, তাতে এসব ম্যাচ মাঠে গড়ানো নিয়ে আশঙ্কা তৈরি হয়েছে।

এরই মধ্যে ওয়াংখেড়ের ৮ মাঠকর্মীর করোনাক্রান্তের খবরে সেখানকার সুরক্ষা ব্যবস্থা নিয়ে আরও শঙ্কায় ফেলেছে আইপিএল কর্তৃপক্ষকে।

এএনআইকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে আইপিএলের এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, টুর্নামেন্ট শুরুর আগে এ ধরনের খবর পাওয়া অবশ্যই চিন্তার। আমরা কোভিডবিধি পুরোপুরি মেনে চলছি। তবে এ খবর পাওয়ার পর সবাই কিছুটা উদ্বিগ্ন। আমরা যতটা সম্ভব সবদিকে নজর রাখার চেষ্টা করছি। কোথাও যেন কোনো ফাঁক না থাকে।

তবে বিষয়টি সমাধানে এরই মধ্যে বিকল্প পদ্ধতি খুঁজছে বিসিসিআই।

ভারতের বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের খবর, মাঠ প্রস্তুত করতে অন্য জায়গা থেকে গ্রাউন্ড স্টাফ আনার পরিকল্পনা করছে বিসিসিআই। বান্দ্রা-কুরলায় শারদ পাওয়ারের অ্যাকাডেমি এবং কান্দিভালিতে শচীনের অ্যাকাডেমি থেকে আনা হবে এ কর্মীদের।

 



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


Top