সোমবার, ২০শে মে ২০২৪, ৬ই জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

অপরাধী ধরতে পুলিশ ফোর্সে যোগ হলো রোলস রয়েস গাড়ি


প্রকাশিত:
১৩ মে ২০২৪ ১৭:১৪

আপডেট:
২০ মে ২০২৪ ১৩:০৪

ছবি- সংগৃহীত

এশিয়ার অনুন্নত কিংবা উন্নয়নশীল দেশে পুলিশের বহরে লক্কর ঝক্কর গাড়িই বেশি দেখা যায়। কিন্তু উন্নত দেশের চিত্র অনেকটাই ভিন্ন। পুলিশ ফোর্সে নামী দামি গাড়ি যোগ করার ক্ষেত্রে সবাইকে পেছনে ফেলল মিয়ামি বিচ পুলিশ। এর আগে দুবাই ও ইউরোপের একাধিক দেশে বিলাসবহুল ল্যাম্বরগিনি, অডি, বিএমডাব্লিউ গাড়ি ব্যবহার করতে দেখা গিয়েছে। এবার অপরাধী ধরতে রোলস রয়েস গোস্ট মডেল যোগ করল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মিয়ামি বিচ পুলিশ। রোলস রয়েস গোস্ট গাড়ির প্রথম জেনারেশন সিরিজ ২ যোগ করা হয়েছে গ্যারাজে।

এই গাড়িগুলোর মূল্য প্রায় সোয়া দুই কোটি টাকা। পেট্রোলিং থেকে অপরাধী ধরা সবখানেই ব্যবহার হবে এই চার চাকা। যে গাড়ি কিনতে কোটি কোটি টাকা খরচ করেন সেলেব্রিটিরা, সেই গাড়ি এবার পুলিশ ফোর্সে ব্যবহার করা হবে। যা শুনে চোখ কপালে উঠেছে নেটিজেনদের। যদিও পুলিশের বহরে বিলাসবহুল গাড়ি এই প্রথম যোগ করা হয়নি।

এর আগে দুবাই পুলিশ রোলস রয়েস মডেল, মার্সিডিজ এএমজি, অ্যাস্টন মার্টিন, বুগাটি ভেরন, নিসান জিটিআর, ল্যাম্বর্ঘিনি, ফেরারির মতো গাড়ির মতো বিলাসবহুল চার চাকা পুলিশ বহরে যোগ করেছে। জানা গিয়েছে, মিয়ামি বিচ পুলিশ যে রোলস রয়েস কিনেছে তা এফ০১ বিএমডব্লিউ ৭ সিরিজ প্ল্যাটফর্মের উপর ভিত্তি করে তৈরি।

গাড়ির ২০ শতাংশ বিএমডাব্লিউ ৭ সিরিজের থেকে নেওয়া। এই গাড়িতে রয়েছে ৩২৯০ মিলিমিটার হুইলবেস। উন্নত এয়ার স্প্রিং সাসপেনশন যা রোলস রয়েস ফ্যান্টমেও রয়েছে। গাড়িতে ফ্লেক্স রে ইলেক্ট্রনিক সিস্টেমও রয়েছে। বিশ্বের প্রথম রোলস রয়েস কপ কার বলে দাবি করেছে মিয়ামি বিচ পুলিশ।

রোলস রয়েস ঘোস্ট মডেলের গাড়ির শক্তিও ব্যাপক। ৬.৭৫ লিটার টুইন সিলিন্ডার টার্বো চার্জ ভি১২ ইঞ্জিন রয়েছে চার চাকায়। সঙ্গে ৮ স্পিড অটোমেটিক ট্রান্সমিশন। এই ইঞ্জিন সর্বোচ্চ ৫৭১ হর্সপাওয়ার এবং ৮৫০ এনএম টর্ক তৈরি করতে পারে। ৫৭১টি ঘোড়ার সমান শক্তি রয়েছে এতে। ০-১০০ কিমি প্রতি ঘণ্টা গতি স্পর্শ করতে সময় নেয় মাত্র ৪.৩ সেকেন্ড এবং ০-১৬০ কিমি প্রতি ঘণ্টা গতি তুলতে সময় নেয় ১০.৪ সেকেন্ড। গাড়ির টপ স্পিড ২৫০ কিমি প্রতি ঘণ্টা।

নতুন রোলস রয়েস যোগ নিয়ে বেশ উচ্ছ্বসিত মিয়ামি বিচ পুলিশ। যা তারা সোশ্যাল মিডিয়াতেও প্রকাশ করেছে। যদিও এই নিয়ে অনেক সমালোচনাও হয়েছে। এত দামি রোলস রয়েস গাড়ি যোগ করা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন অনেকে। তবে মিয়ামি পুলিশ এই সিদ্ধান্তে অনড় এবং তারা পরিষেবা উচ্চ মানের করার প্রতিশ্রুতিও দিয়েছে।



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


রিসোর্সফুল পল্টন সিটি (১১ তলা) ৫১-৫১/এ, পুরানা পল্টন, ঢাকা-১০০০।
মোবাইল: ০১৭১১-৯৫০৫৬২, ০১৯১২-১৬৩৮২২
ইমেইল : [email protected], [email protected]
সম্পাদক: মো. জেহাদ হোসেন চৌধুরী

রংধনু মিডিয়া লিমিটেড এর একটি প্রতিষ্ঠান।

Developed with by
Top